Follow Us:www.annoorbd.com
বিশেষ ঘোষণা:-
আসসালামু আলাইকুম ওরাহমাতুল্লাহ, সম্মানিত ভিজিটরগণ, আমাদের ওয়েব সাইটের আপডেটের কাজ চলছে, ভিজিট করতে সাময়ীক অসুবিধা হতে পারে, তাই আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখিত।

Category: তালাক/ডিভোর্স

উত্তর:- তালাক প্রাপ্তা মহিলা অন্যত্র বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হওয়াার জন্য শরীয়তের মূলনীতি হলো ইদ্দত পূর্ণ করা। কেননা ইদ্দত পালনরত অবস্থায় তালাক প্রাপ্তা মহিলা প্রথম স্বামীর অধিনেই থাকবে। সুতরাং প্রশ্নোক্ত সুরতে তালাক প্রাপ্তা মহিলাকে ইদ্দত চলাকালীন সময়ে...

উত্তর:- কোন ব্যক্তি রাগান্বিত অবস্থায় তার স্ত্রীকে সম্বোধন ছাড়া তালাক দিলেও তা শরীয়তে তা তালাক বলেই গণ্য হবে। এবং তার স্ত্রীর উপরই তালাক পতিত হবে। হ্যা, যদি সে অস্বীকার করে এবং তার দাবিকে প্রমাণ করার জন্য এই মর্মে কসম করে যে, আমি আমার স্ত্রীকে তালাক...

উত্তর:-ইসলামি শরীয়তে নেশাগ্রস্ত ব্যক্তির তালাক পতিত হয়ে যায়। সুতরাং প্রশ্নে সুরতে স্ত্রীর উপর তালাক পতিত হয়ে যাবে। তবে কেউ যদি তাকে ধোকা দিয়ে তার অজান্তেই মদ পান করায় এক্ষত্রে তালাক পতিত হবে না।  আদ্দুররুল  মুখতার ৩/২৪১ ,ফাতওয়ায়ে ...

উত্তর:-শরয়ী দৃষ্টিতে বালেগের নিকটবর্তী পুরুষকে “মুরাহিক”বলে। মুরাহিকের বয়স কমপক্ষে ১০ বছর। হালালা সহীহ হওয়ার জন্য বালেগ হওয়া জরুরী নয়। বরং সহবাসের উপযুক্ত হওয়াই যথেষ্ট ।  সুতরাং প্রশ্নেবর্ণিত সুরতে হালালা সহীহ হয়ে যাবে। তব...

উত্তর:-তালাক পতিত হওয়ার জন্য শর্ত হল,তালাকদাতা প্রাপ্ত বয়স্ক তথা বালেগ হওয়া। না বালেগের তালাক গ্রহণযোগ্য নয়।  সুতরাং প্রশ্নেবর্ণিত সুরতে নাবালেগ স্বামীর প্রদত্ত তালাক গ্রহণযোগ্য হবে না।  আদ্দুররুল মুখতার ৩/২৪৩,...

উত্তর:- তিন তালাক পতিত হওয়ার পর স্বামী-স্ত্রী একে অপরের জন্য হারাম হয়ে যায়। স্বাভাবিকভাবে একে অপরকে আর ফিরিয়ে নেয়ার কোন সুযোগ থাকেনা। বরং প্রত্যেকে নিজ নিজ পছন্দানুযায়ী অন্যত্র বিবাহ বন্ধনে আবদ্ধ হয়ে যাবে। পরবর্তীতে যদি ওই মহিলার ২য়স্বামী মারা যায়...

উত্তর:-শরয়ী দৃষ্টিতে তিন তালাক পতিত হওয়ার পর স্বামী-স্ত্রীর বৈবাহিক সম্পর্ক বিচ্ছিন্ন হয়ে তারা পরস্পর অপরিচিত ব্যক্তির ন্যায় হয়ে যায়।  সুতরাং প্রশ্নেবর্ণিত সুরতে উক্ত স্বামী-স্ত্রীর মাঝে পর্দার বিধান রক্ষা করা ফরজ। তারা পা...

উত্তর:-তালাক পতিত হওয়ার জন্য অন্যতম শর্ত হল,তালাকের মহল (স্থান)সহীহ হওয়া। সুতরাং প্রশ্নেবর্ণিত মা এবং বোনের উপর কোন তালাকই পতিত হবেনা এগুলো অনর্থক বিবেচিত হবে। শুধুমাত্র স্ত্রীকে প্রদত্ত এক তালাকই পতিত হবে।  -...

উত্তর: হ্যাঁ, স্বামী যদি এই কথাগুলো স্ত্রীকে তালাকের নিয়তে বলে, তাহলে স্ত্রী তালাক হয়ে যাবে। আর তালাকের নিয়ত না থাকলে তালাক হবে না। -ফাতাওয়া কাযিখান- ১/২৮৪, আদ...

উত্তর:-তালাক পতিত হওয়ার জন্য সুনির্দিষ্ট ব্যক্তিকে উদ্দেশ্য নেয়া জরুরী। অস্পষ্ট ও অনির্দিষ্টভাবে তালাক দিলে তা পতিত হবেনা। সুতরাং প্রশ্নেবর্নিত মহিলার উপর কোন তালাকই পতিত হবেনা।  আদ্দুররুল মুখতার৩/২৯৪,রদ্দুল মুহতার ( ফাতওয়ায়ে শামী...

উত্তর:- তালাক দেয়ার শরীয়ত সম্মত ও সুন্নাহসম্মত পদ্ধাত দুটি ১.আহসান ২.হাসান। আহসান বলা হয় ,স্ত্রী হায়েজ থেকে পবিত্র হওয়ার পর তার সাথে সহবাস করার পুর্বে ১ তালাত দেয়া এবং ইদ্দত শেষ হওয়ার আগে আর তালাক না দিয়ে এভাবে রেখে দেওয়া। হাসান তালাক বলা হয়,কোন ব...

উত্তর:-মেয়ের বাবা সংবাদ পাওয়ার সাথে সাথে সম্মতি ও সিদ্ধান্ত না জানিয়ে দেরী করায় তার এখতিয়ার রহিত হয়ে গেছে। বিধায় এখানে কোন ধরনের তালাক পতিত হবেনা।  আদ্দুররুল মুখতার ৪/৫৭৭,ফাতওয়ায়ে হিন্দিয়া ১/৪৪১,বাদায়েয়ুস সানায়ে ৪/২৬৬,বাহরুর রায়েক...

উত্তরঃ শরীয়তের নীতিমালা হলো ইঙ্গিত সূচক শব্দের মাধ্যমে তালাক পতিত হওয়ার জন্য স্বামীর তালাকের নিয়ত থাকা শর্ত অন্যথায় তালাক পতিত হবে না। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সুরতে আবু বকরের তার স্ত্রীকে বলা তোমার যা ইচ্ছা কর। তোমার সাথে ...

উত্তরঃ শরীয়তের মূল নীতি হলো পরস্পর বিবাহ সহিহ হয় এরকম দুজন মহিলাকে একসাথে একজন পুরুষের জন্য বিবাহ করা বৈধ আছে। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সুরতে যেহেতু ফাতেমার সাথে তার সৎ মার বিবাহ বৈধ আছে (সৎমাকে ছেলে ধরে নিলে) বিধায় যায়েদ স...

উত্তরঃ শরয়ী নিয়মানুযায়ী কারো কোন জিনিস অন্যায়ভাবে নষ্ট করলে তার ক্ষতিপূরণ দিতে হয়। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সুরতে সাক্ষীদের জেনেশুনে মিথ্যা সাক্ষ্য দিয়েছে। ফলে সাইফুলের অর্থের ক্ষতি হয়েছে। কেননা তারা যদি এ সাক্ষ্য না দিত...

Copyright 2021 - All Rights Reserved