Follow Us:
বিশেষ ঘোষণা:-
আসসালামু আলাইকুম ওরাহমাতুল্লাহ, সম্মানিত ভিজিটরগণ, আমাদের ওয়েব সাইটের আপডেটের কাজ চলছে, ভিজিট করতে সাময়ীক অসুবিধা হতে পারে, তাই আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখিত।

Category: জায়েয নাজায়েয

উত্তর: শরয়ী দৃষ্টিতে মসজিদের স্থানান্তর যোগ্য বস্তু মুতাওয়াল্লীর অনুমতিক্রমে বিক্রি করা জায়েয আছে। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সূরতে মসজিদের অপ্রয়োজনীয় মোমবাতি ইত্যাদি যে কোন প্রয়োজনে মুতাওয়াল্লীর অনুমতিক্রমে বিক্রয় করা জায়েয। তবে মাটি যেহেতু স্থানান্তর...

উত্তর: শরয়ী নীতিমালা অনুযায়ী হাদিয়া-উপহার সামগ্রীর মালিক বানানোর দ্বারা মালিকানা সাব্যস্ত হয়। সুতরাং বিবাহকালীন বা পরবর্তিতে যেসব উপহার মেয়েকে মালিক বানিয়ে দেয়া হচ্ছে তা বিবাহ বিচ্ছেদেও পর নিয়ে আসতে পারবে, অন্যথায় নয়।     রদ্দুল...

উত্তর: শরয়ী দৃষ্টিতে একে অপরকে হাদিয়া বা বখশিশ ইত্যাদি দেয়া-নেয়া সুন্নত। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সূরতে হোটেল ইত্যাদির খাবার পরিবেশনকারীকে তার আদব আখলাকের উপর সন্তুষ্ট হয়ে কিছু বখশিশ দেয়া বৈধ হবে। তবে কেউ না দিলে তাদের জন্য জোরপূর্বক নেয়া বৈধ হবে না।...

উত্তর: শরয়ী দৃষ্টিতে পুরুষের জন্য মেহেদী ইত্যাদি হাতে-পায়ে ব্যবহার করা মাকরূহ তবে মহিলাদের জন্য সুন্নাত। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সূরতে মহিলাদের জন্য সর্বাবস্থায় হাত-পা ও অন্যান্য অঙ্গের মধ্যে মেহেদী ব্যবহার করা জায়েয আছে। আর পুরুষদেও জন্য চুল ও দাড়ি...

উত্তর: শরয়ী দৃষ্টিতে জানা যায় যে, গুনাহের কাজে মান্নত করার দ্বারা মান্নত সহিহ হয় না। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সূরতে যেহেতু শ্মশান গরু দান করা স্পষ্ট গুনাহের কাজ। তাই তার মান্নত সহিহ হয় নাই। বরং তা কসমে পরিণত হবে। এবং উক্ত কসমের কাফফারা আদায় করতে হবে।...

উত্তর: শরীয়তের মূলনীতি অনুযায়ী যদি কোন ব্যক্তি ধর্মীয় কাজকে নিজের পেশা বানিয়ে নেয় বা ধর্মীয় কাজের জন্য সময় নির্ধারণ করে নেয়, তাহলে তার বিনিময়ে পারিশ্রমিক নেয়া বৈধ। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সূরতে যদি কোন ব্যক্তি ইসলামী সংগীত পরিবেশন করা বা ওয়াজ নসিহত ...

উত্তর: শরীয়তে মূলনীতি অনুযায়ী অবৈধ পন্থায় যে কোন উপার্জনই অবৈধ। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সূরতে ইউটিউব এর মাধ্যমে আয়ের উৎস হলো; বিভিন্ন কোম্পানী ইউটিউবে তাদের পণ্যের অ্যাড দিয়ে থাকে এবং এর বিনিময়ে ইউটিউব কোম্পানী নির্দিষ্ট পরিমাণ অর্থ পেয়ে থাকে। আর সে...

উত্তর: শরয়ী দৃষ্টিতে ইবাদতের বিনিময়ে পারিশ্রমিক নেয়া বৈধ নয়। মায়্যিতে জন্য কবর খনন করা ফরযে কিফায়া যা ইবাদতের অন্তর্ভূক্ত। তাই কবর খনন করে টাকা নেয়া জায়েয হবে না। তবে যদি উক্ত এলাকায় একাধিক কবর খননকারী থাকে তাহলে পারিশ্রমিক নেয়া বৈধ হবে। অথবা যদি ...

উত্তর: কোরআন হাদীসের স্পষ্ট বর্ণনা অনুযায়ী কোন প্রাণীর ছবি অংকন করা বা ভাস্কর্য নির্মাণ ইত্যাদি নাজায়েয ও হারাম। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সূরতে চারুকলা পরীক্ষায় যে কোন ধরণের প্রাণীর ছবি অংকন করা নাজায়েয ও হারাম।     মুসলিম ২-২০১, র...

উত্তর :- সর্বাবস্থায়ই পবিত্র কুরআনের সম্মান বজায় রাখা জরুরী। তাই তার ফাটা, ছেড়া পৃষ্ঠাগুলোও যথাযথভাবে হেফাজত করা জরুরী। তাই একান্ত পড়ার অনুপযুক্ত হয়ে গেলে তা এক. মাটির নিচের পুঁতে রাখবে। দুই. নির্দিষ্ট স্থানে পুড়িয়ে তার ছাইগুলো নদী বা সমুদ্র...

উত্তর :- যাকে কোন জিনিসের দখল বা বহন  করার অনুমতি দেয়া হয় তার জন্য মুআক্কিলের অনুমতি ব্যতিরেকে উক্ত বস্তুতে হস্তক্ষেপ করার কোন অবকাশ নাই। তাই প্রশ্নোক্ত সুরতে মাদরাসা শিক্ষকগণ যেহেতু মাদরাসার কর্তৃপক্ষ কর্তৃক টাকা উসূলের দায়িত্ববান বা ‍উকিল নিযুক্...

উত্তর :- হাদীস শরীফে আছে যে ব্যক্তি আল্লাহর সাথে সাক্ষাতেরে আশা রাখে আল্লাহ তাআলার সাথে সাক্ষাতের আশা করেন। পক্ষান্তরে যে আল্লাহর সাক্ষাতকে অপছন্দ করে আল্লাহও তার সাক্ষাতকে অপছন্দ করে। মৃত্যুর কথা স্মরণ হয়। আল্লাহর স্মরণ করলে সওয়াব হয়। তাই, আল্লাহ...

উত্তর :- শরীয়তের দৃষ্টিতে জীব-জন্তুর ছবি সম্বলিত ঘরে নামায আদায় করা মাকরুহ।  ছবিগুলো সামনে-পিছনে, ডানে-বায়ে  যেখানেই হোক না কেন। কোন অবস্থাতেই ছবি আছে এমন স্থানে নামায পড়া জায়েয নয়। সুতরাং ঘরে জীব-জন্তুর ছবি থাকলে সে ঘরেও নামায পড়া মাকরূহ। তাতে কো...

উত্তর:- ব্যক্তিগত কাজ বাদ দিয়ে যদি অন্য কারো কাজ করতে হয় তাহলে ওইসময় অনুপাতে টাকা গ্রহণ করার অনুমতি আছে। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সুরতে যদি কারো ব্যক্তিগত বিষয়ে স্বাক্ষ দেয়ার জন্য যায় তাহলে ওইলোক থেকে যাতায়াত খরচ ও পরিবারের জন্য টাকা গ্রহণ করতে পারবে...

উত্তর:-শরয়ী দৃষ্টিতে সব সিফাতি নামের শরুতেই “ আবদুন ” শব্দ যুক্ত করে নাম রাখার অনুমতি আছে। তবে বর্তমানে অনেকেই অসর্তকতাবশত “আবদুন’ শব্দ যুক্ত করেনা আবার কেউ কেউ নাম রাখার সময় যুক্ত করলেও পরবর্তীতে ডাকার তা খেয়াল করেনা। তাই খুবই সতর্কতা জরুরী। রদ্দ...

Copyright 2021 - All Rights Reserved