Category: কোরবানি

অনেক হাজ্বী সাহেব দেশে তার কুরবানীর ব্যবস্থা করে যান। এটাকে তারা জরুরি মনে করেন। এক্ষেত্রে মাসআলা হল, যে হাজ্বী কুরবানীর দিনগুলােতে মুসাফির থাকবে তার উপর সাধারণ কুরবানী জরুরি নয়। হাঁ এরপরও যদি কেউ নফল হিসাবে কুরবানী দিতে চায় তবে সেটা ভাল। পক্ষান্তর...

কুরবানীর তিন দিন কুরবানীর পশু ছাড়া অন্য কোন পশু জবাই করা যাবে না। এমনকি হাঁস-মুরগী বা গরু-ছাগলও নয়। এটি ভুল ধারণা। তবে কুরবানীর নিয়তে হাস, মুরগী ইত্যাদি (যেগুলাে দ্বারা কুরবানী সহীহ নয়) জবাই করা ধনী-গরিব সকলের জন্যই নাজায়েয। গােস্তের প্রয়ােজনে ...

অনেকে কর্মচারী কাজের লােকদেরকে কুরবানীর গােস্ত দেওয়া ও খাওয়ানােকে নাজায়েয মনে করে। অথচ তাদেরকে পারিশ্রমিক হিসাবে না দিয়ে হাদিয়া দিলে কোন অসুবিধা নেই এবং অন্যান্য আত্মীয়-স্বজন, পাড়া-প্রতিবেশীদের মত এদেরকেও কুরবানীর গােস্ত দেওয়া উচিত। তবে তার ন...

সাধারণত যাদের একাধিক কুরবানী থাকে তাদেরকে ১০ তারিখে একটি এবং ১১ বা ১২ তারিখে অন্যটি কুরবানী করতে দেখা যায়। বিনাওজরে এমন করা ঠিক নয়। বিনাওজরে প্রথমদিন কুরবানী না করে পরে কুরবানী দেওয়া অনুত্তম। -মুআত্তা মালেক ১৮৮; বাদায়েউস্ সানায়ে ৪/১৯৮; আলমগীরী ৫...

অনেক ক্ষেত্রে জবাইকারী জবাই করতে গিয়ে সমস্যায় পড়লে কসাই বা অন্য কেউ এসে ছুরি ধরে এবং বাকি জবাই পূর্ণ করে। কিন্তু এ ক্ষেত্রে দ্বিতীয় ব্যক্তিকে বিসমিল্লাহ বলতে শােনা যায় না। যদি প্রথম ব্যক্তির জবাই সম্পন্ন না হয় (অর্থাৎ দুই শাহরগ, শ্বাস নালী ও খাদ...

অনেকেই কুরবানীর পশু মসজিদের ইমাম বা হুজুরকে দিয়ে জবাই করানাে জরুরি মনে করে। অথচ এটি ভুল ধারণা। কুরবানীদাতা জবাই করতে জানলে নিজেই জবাই করা উত্তম। -মুসনাদে আহমাদ হাদীস ২২৬৫৭; আলমগীরী ৫/৩০০; ইলাউস্ সুনান ১৭ /২৭১-২৭৪; বাদায়েউস সানায়ে ৪/২২২...

অনেকে অন্তঃসত্ত্বা পশুর কুরবানী না জায়েয মনে করে থাকে। অথচ এধারণা সহীহ নয়। এধরনের পশুর কুরবানী জায়েজ। তবে বাচ্চা দেওয়ার সময় আসন্ন হলে সেটা কুরবানী করা মাকরূহ। -কাযী খান ৩/৩৫০; আলমগীরী ৫/৩০২  ...

অনেকে মনে করেন, পশুর শিং অল্পস্বল্প ভাঙ্গা থাকলেই ওই পশু দ্বারা কুরবানী হবে না। এ ধারণা ঠিক নয়। সহীহ মাসআলা হল, যে পশুর শিং একেবারেই গােড়া থেকে ভেঙ্গে গেছে, যে কারণে মস্তিস্ক ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে সে পশুর কুরবানী জায়েজ নেই। পক্ষান্তরে যে পশুর শিং আংশ...

উত্তর :-শুধু যিলহজ্বের ১০ তারিখে কুরবানীর নেসাব পরিমাণ সম্পদ না থাকলে কুরবানী ওয়াজিব হবে না বলে ধারণা করা হয়। ফলে যিলহজ্বের ১১ বা ১২ তারিখে কারাে কারাে কাছে হঠাৎ কোনভাবে নেসাব পরিমাণ সম্পদ আসলে সে আর কুরবানী করে না। যেমন, যে অবিবাহিত মেয়ের উপর কুর...

উত্তর :- অনেকে মনে করেন, যাকাত ফরয হওয়ার জন্য যে ধরনের সম্পদ জরুরি যেমন, টাকা-পয়সা , সােনা-রুপা, ব্যবসায়িক সম্পদ, তেমনি কুরবানী ওয়াজিব হওয়ার জন্যও একই শর্ত। ফলে কোন কোন স্বচ্ছল পরিবারের লোকজনকেও কুরবানী দিতে দেখা যায় না। এটি ভুল ধারণা। সঠিক মাস...

উত্তর :- কুরবানি ও আকীকা আলাদাভাবেই করা উচিৎ। তবে একত্রে করলে আদায় হবে না তা নয়। একত্রে করলেও কুরবানী-আকীকা দুটোই আদায় হবে। কারণ আকীকাও এক ধরনের কুরবানী। হাদীস শরীফে আকীকার উপরও ‘নুসুক’শব্দের প্রয়োগ হয়েছে। আর এখানে ‘নুসুক’অর্থ কুরবানী। হাদীসের আ...

উত্তর:- প্রশ্নোক্ত অবস্থায় আপনার মহল্লা যেহেতু মুহাম্মাদপুরের ভেতরেই সুতরাং আপনার মহল্লায় নামায শেষ হওয়ার আগেও কুরবানী করতে পারবেন। কারণ, একটি গ্রাম, শহর বা একটি এলাকার কোনো এক জায়গায় ঈদের নামায আদায় হয়ে গেলেই ঐ পুরো এলাকাবাসীর জন্য কুরবানী করা জায...

উত্তর:-শরয়ী দৃষ্টিতে কোরবানীর পশুর এক অঙ্গের এক তৃতীয়াংশের বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হলে তার দ্বারা কোরবানী দেওয়া যায় না।  সুতরাং প্রশ্নেবর্ণিত সুরতে একতৃতীয়াংশের বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হলে তার দ্বারা কোরবানী দেওয়া যাবে না।  ...

উত্তর:- কোরবানী সহীহ হওয়ার জন্য কোরবানী দাতাদের বিশুদ্ধ নিয়তই যথেষ্ট,অংশিদারদের নামের তালিকা উল্লেখ করে পাঠ করা জরুরী নয়। সুতরাং নাম উল্লেখ না করে জবাই করে ফেললেও কোন সমস্যা নাই।  - হিদায়া ৪/৪৫১,ফাতওয়ায়ে তাতারখানিয়া ১৭/৪৪৬,ফাতওয়ায়...

উত্তর:-নেসাব পরিমাণ মালের মালিকের নিকট নগদ অর্থ বা বিক্রি করে নগদ অর্থ অর্জন করা যায় এমন প্রয়োজনাতিরিক্তি সামানা না থাকলে তার উপর কোরবানী ওয়াজিব হয় না।  সুতরাং প্রশ্নোক্ত ব্যক্তির প্রয়োজনাতিরিক্ত সামানা থাকলে তা বিক্রি করে...