Category: কসম/শপথ

উত্তরঃ- রোজা রাখার মান্নত করা সহীহ। অতঃপর স্থায়ী অসুস্থতা বা বার্ধক্যের কারণে রোজা রাখতে অক্ষম হলে ফিদিয়া আদায়ের শর্তে রোজা না রাখার অনুমতি রয়েছে। সুতরাং প্রশ্নোক্ত ব্যাক্তি প্রত্যেক রোজার বিনিময়ে ফিদিয়া আদায় করবে, অর্থাৎ এক ফিৎরা সমপরিমান সম্পদ গ...

উত্তরঃ- কোনো মুসলমানের মুখ থেকে কুফরি জাতীয় শব্দ বের হওয়া বড় অন্যায় ও মারাত্মক গোনাহের কাজ। তাই প্রশ্নোক্ত ব্যাক্তি খাটি মনে তাওবা করা অত্যন্ত জরুরী। আর “আমি যদি আর দাড়ি কাটি তাহলে আমি মুসলমান না” এ ধরণের বাক্য উচ্চারণ করলে তা কসমের অন্তর্ভুক্ত হয়...

উত্তরঃ- মৌলিক ঈবাদত ছাড়া অন্যান্য ঈবাদতের ক্ষেত্রে মান্নত সহীহ হয় না। সুতরাং মসজিদ নির্মান মৌলিক ঈবাদত না হওয়ায় তা নির্মানের মান্নত করলে সহীহ হবে না।   -বাদায়েউস সানায়েঃ-৬/৩২৪, আল ফিকহুল হানাফী ওয়া আদিল্লাতুহুঃ- ২/৩১৫, কিফায়াতুল মুফতীঃ-...

উত্তরঃ-  গুনাহের জন্য কৃত মান্নত অগ্রহনযোগ্য। প্রশ্নে বর্ণিত মাজারে মান্নত করা নাজায়েয ও শিরক। এ মান্নত সংগঠিতই হয়নি। তাই তা পুরা করা আবশ্যক নয়, বরং তওবা করা আবশ্যক।...

উত্তরঃ- হারাম ধন-সম্পদ আল্লাহর দরবারে গ্রহনযোগ্য নয়। এবং তা নিজের জন্য বা কোন প্রকার দ্বীনী কাজে খরচ করা জায়েয নেই। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত টাকা দ্বারা কসমের কাফ্ফারা আদায় করা যাবে না।   - রদ্দুল মুহতারঃ- ১/৬৫৮, আল ফিক...

উত্তরঃ- সমাজ প্রচলনে কোরআন শরীফ নিয়ে শপথ করা কসমের অন্তর্ভূক্ত। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সুরতে শপথ কসমের অন্তর্ভূক্ত হবে।   - আল বাহরুর রায়েকঃ- ৪/৪৮১, ফাতহুল ক্বদীরঃ- ৫/৬৫, কিফায়াতুল মুফতীঃ- ৯/১১৬,...

উত্তরঃ- সংসদে পঠিত শপথনামা প্রচলিত অর্খে শপথ, শরয়ী দৃষ্টিকোনে নয়। এ শপথের মুল উদ্দেশ্য ওয়াদাবদ্ধ বা প্রতিজ্ঞাবদ্ধ হওয়া; যা শরয়ীভাবে কসমের অন্তর্ভুক্ত নয়। সুতরাং সংসদ সদস্যগন শপথ ভঙ্গ করলে কাফ্ফারা দিতে হবেনা।   - ফাত...

উত্তরঃ- কসম সহিহ হওয়ার জন্য আল্লাহর নাম বা সিফতি নাম উল্লেখ করা আবশ্যক। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সুরতে এমনটা না হওয়ায় কসমই শুদ্ধ হয়নি। বরং এটি একটি অহেতুক কথা হিসাবে বিবেচিত হবে।   -আল ফিকহুল হানাফী ওয়া আদিল্লাতুহুঃ২/২৯৮, ...

উত্তর :- প্রশ্নোক্ত কথার কারণে বিবাহের সাথেসাথেই আপনার স্ত্রীর উপর এক তালাকে বায়েন পতিত হয়ে গেছে। তাই তখনি আপনাদের পৃথক হয়ে যাওয়া আবশ্যক ছিল। অথবা নতুনভাবে বিবাহ করে সংসার করা দরকার ছিল। কিন্তু তা না করে একত্রে বসবাস করে আপনি মারাত্মক ভুল করেছেন।...

উত্তর :- শুধু ‘কসম’ শব্দ বলে কোনো কিছুর অঙ্গিকার করলে তা দ্বারাও কসম সংঘটিত হয়ে যায়। তাই প্রশ্নোক্ত ক্ষেত্রে উক্ত কথা দ্বারা আপনার খালার কসম সংঘটিত হয়ে গেছে। তবে আত্মহত্যা করা যেহেতু হারাম, আর হারাম কাজের কসম করলে তা পূরণ করা নিষেধ। তাই আপনার বড় খ...

উত্তর: শরয়ী দৃষ্টিতে মহান আল্লাহ তায়ালার সত্তা ও গুণাবলী ব্যতীত অন্যকিছু দ্বারা কসম করলে কসম হবে না। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সূরতে যেহেতু কুরআনের স্বীয় বানীগুলো মহান আল্লাহর গুণাবলীর অন্তর্ভূক্ত এবং বর্তমানে কুরআনের কসম খাওয়ার প্রচলনও রয়েছে। তাই খাল...

উত্তর: শরয়ী দৃষ্টিতে জানা যায় যে, গুনাহের কাজে মান্নত করার দ্বারা মান্নত সহিহ হয় না। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত সূরতে যেহেতু শ্মশান গরু দান করা স্পষ্ট গুনাহের কাজ। তাই তার মান্নত সহিহ হয় নাই। বরং তা কসমে পরিণত হবে। এবং উক্ত কসমের কাফফারা আদায় করতে হবে।...

উত্তর :- কোরান হাতে কসম করা বৈধ। তবে উহা ভঙ্গ করলে কাফফারা আদায় করা জরুরী্।   সুরা মায়েদা - ৮৯; বুখারী - ২/৯৯২; ফাতাওয়া শামি - ৩/৭১২; আল বাহরুর রায়েক - ৪/৪৭৩।...

উত্তর :- ইসলামি শরীয়তে আল্লাহ ব্যতিত অন্য কারো নামে কসম বা মানত করা হারাম। এমন মানত পুরা করাও গুনাহের কাজ। সুতরাং প্রশ্নোক্ত সুরতে খাজা বাবার নামে মানত করা সহীহ হয়নি। তাই এমন মানত পুরা না করলে গুনাহগার হবে না। রবং উক্ত মানত পুরা না করাই বাঞ্ছনীয়...

উত্তর:- ইসলামী শরীয়তে সত্য নিয়ে কসম করা নিষিদ্ধ নয়। কেননা, কোন সত্যকে আরো বেশী শক্ত করার জন্যই কসম করা হয়। সুতরাং প্রশ্নোক্ত সুরতে বক্তা যদি বৈধ কোন বিষয়ে ভবিষ্যতে করা বা না করার কসম করে তাহলে তা কসম হিসেবেই বিবেচিত হবে। এবং যদি এধরনের কসম ভঙ্গ ...