Follow Us:
বিশেষ ঘোষণা:-
আসসালামু আলাইকুম ওরাহমাতুল্লাহ, সম্মানিত ভিজিটরগণ, আমাদের ওয়েব সাইটের আপডেটের কাজ চলছে, ভিজিট করতে সাময়ীক অসুবিধা হতে পারে, তাই আমরা আন্তরিকভাবে দুঃখিত।

Category: ঈদের নামাজ

উত্তর :- তাকবীরে তাশরিকের দিনগুলোতে আদায়কৃত ফরজ নামাযের পর তাকবীর বলা ওয়াজিব। এবং ঐ দিনগুলো কাযা হওয়া নামাযগুলোও যদি আইয়ামে তাশরিকের ভিতর আদায় করেন। তাহলে ঐ কাযা নামায আদায়ের পরও তাকবীরে তাশরিক বলা ওয়াজিব।   রদ্দুল মুহতার - ১/১৭৯; ফাতাওয়া ...

উত্তর :- ইমাম সাহেব খুৎবা দেওয়ার ইচ্ছায় মিম্বরে বসার পর থেকে খুৎবা শেষ করা পর্যন্ত কথা বলা তাসবীহ নামায ইত্যাদি পড়া মাকরূহ। তাই খুৎবা চলাকালে মুক্তাদিরা ইমামের খুৎবা মনোযোগ দিয়ে শ্রবণ করবে। তারা তাকবীরে তাশরীক বা অন্য কোন দোআ পড়বে না।   ...

উত্তর :- যে কোন নামাযে অনিচ্ছাকৃতভাবে ওয়াজিব ছুটে গেলে সাজদায়ে সাহু ওয়াজিব হয়। তবে, বিশৃংখলা ও ফেৎনা হওয়ার সম্ভাবনার কারণে ঈদ ও জুমআর নামায এক্ষেত্রে স্বতন্ত্র। অর্থাৎ, এ উভয়টার সাজদায়ে সাহু না দিলেও নামায সহিহ হয়ে যাবে। তাই ঈদের নামাযে অতিরিক্ত ত...

উত্তর :- ইদের নামাযের বিধান অন্যান্য নামাযের বিধানের মতই। তাই একজন মুসল্লি তখনই কোন রাকাত পেয়েছেন বলে ধরা হবে যখন তিনি ইমামকে কমপক্ষে রুকুতে পান।   তাই কোন ব্যক্তি ইমামকে তাশাহহুদ অবস্থায় পাইলে তিনি কোন জামাত পেয়েছেন বলে হবে। তবে তিনি কোন ...

উত্তর:-ইসলামের দৃষ্টিতে ঈদের নামাজ ময়দানে আদায় করা সুন্নাত। তবে ময়দান না থাকলে অথবা বৃষ্টি বাদল ইত্যাদি ওজরের কারণে মসজিদে ঈদের নামাজ পড়া জায়েয। সুতরাং প্রশ্নেবর্নিত সুতে কোন ওজরের কারণে বা মাঠ না থাকাবস্থায় মসজিদে ঈদের নামাজ পড়া জায়েয আছে। ...

Copyright 2021 - All Rights Reserved