Category: অজু/গোসল

উত্তর : আপনি যে পানি দিয়ে অযু করার কথা উল্লেখ করেছেন তা মায়ে মুসতামাল অর্থাৎ ব্যবহৃত পানি। ব্যবহৃত পানি দিয়ে অযু করলে বা অযুর কোনো অঙ্গ ধৌত করলে অযু শুদ্ধ হবে না। অতএব, আপনি সেই পানি দিয়ে পা ধৌত করতে পারবেন না। ধৌত ক...

উত্তর : বেহুশ করার জন্য বা অঙ্গ অবশ করার জন্য যদি ঔষধ খাওয়ানো হয়, তাহলে রোযা ভেঙে যাবে। আর যদি ইনজেকশনের মাধ্যমে বেহুশ করা হয়, তাহলে রোযা ভাঙবে না। কেননা ইনজেকশন রগে বা গোশতে পুশ করা হয়। রগ বা গোশত থেকে কোনো কিছু পেটে পৌঁছায় না। তাই এতে রোযা ভঙ্গ হব...

উত্তর : আপনি যে পানি দিয়ে অযু করার কথা উল্লেখ করেছেন তা মায়ে মুসতামাল অর্থাৎ ব্যবহৃত পানি। ব্যবহৃত পানি দিয়ে অযু করলে বা অযুর কোনো অঙ্গ ধৌত করলে অযু শুদ্ধ হবে না। অতএব, আপনি সেই পানি দিয়ে পা ধৌত করতে পারবেন না। ধৌত করলে অযু শুদ্ধ হবে না। যদি কখনো এভা...

উত্তরঃ- শরীয়তের যে সমস্ত মৌজার উপর মাসাহ এর অনুমতি দেয়া হয়েছে তাতে তিনটি শর্তারোপ করা হয়েছে। ১/ পায়ের যতটুকু অংশ অজুতে ধোয়া ফরজ ততটুকু টাখনুসহ ঢাকা থাকা। ২/ পায়ের সাথে কোন কিছু দিয়ে বাঁধা ছাড়াই ভালোভাবে এঁটে থাকে। ৩/ তা পরিধান করে দুই মাইল ব...

উত্তরঃ- বীর্যপাত বিহীন সঙ্গম দ্বারা গোসল ফরজ হওয়ার ক্ষেত্রে শরীয়তের মূলনীতি হলো সঙ্গমকৃত ব্যাক্তি বা জিনিসটি যৌনক্ষমতা সম্পন্ন হতে হবে। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত  sex toy  যেহেতু যৌনক্ষমতা সম্পন্ন নয় তাই তার সাথে বীর্যপাত বিহীন যৌনকার্য দ্বারা গোসল ফ...

উত্তরঃ- পানি মূলত পবিত্র; যতক্ষণ না নাপাকির বিষয়ে নিশ্চিত হওয়া না যাবে। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত প্রবল বর্ষণের কারণে রাস্তা ঘাটে জমে যাওয়া পানিতে লক্ষ করতে হবে নাপাকীর কোন চেহ্ন দেখা যায় কি না? যদি দেখা যায় তাহলে নাপাক, অন্যথায় নাপাক হিসেবেই ধর্তব...

উত্তরঃ- অযু ও গোসলের মাধ্যমে পবিত্র হওয়ার ক্ষেত্রে শরীরে পানি পৌঁছাতে প্রতিবন্ধক সৃষ্টিকারী বস্তু যথাসাধ্য ‍দূর করা আবশ্যক। সুতরাং প্রশ্নে  বর্ণিত কৃত্তিম দাড়ি বিভিন্ন ধরণের রয়েছে। কিছু আছে সহজেই খোলা যায়। আর কিছু আছে সরাসরি চামড়ার সাথে লাগানো। ...

উত্তরঃ- মানবদেহের দুটি অংশ রয়েছে। বাহ্যিক ও অভ্যন্তরিন। অযু ও গোসলের ক্ষেত্রে বাহ্যিক অংশে পানি পৌঁছানোই যথেষ্ঠ। অভ্যন্তরে পৌঁছানো জরুরী না। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত ব্যাক্তির ল্যান্স লাগানো অংশটা শরীরের অভ্যন্তরীন অংশের অন্তর্ভুক্ত হওয়ায় সেখানে ‍পান...

৫) ...

উত্তরঃ- ফিকহ-ফাতাওয়া ও হাদীসের কিতাব পর্যালোচনা করে গর্দান মাসেহ করার প্রমান পাওয়া যায়। সুতরাং গর্দান মাসেহ করা মুস্তাহাব। তবে গলা মাসেহ করা বিদয়াত।   -সুনানে আবি দাউদঃ- ১/১৬,  রদ্দুল মুহতারঃ- ১/২৬৮, ফাতাওয়ায়ে কাযীখানঃ- ১/২৪৮, ইমদাদুল ফ...

উত্তরঃ- শরীর থেকে রক্ত পুঁজ ইত্যাদি বের হয়ে গড়িয়ে পড়লে ওযু ভেঙ্গে যায়। সুতরাং ইঞ্জেকেশনের মাধ্যমে বের করা রক্তের কারণে ওযু ভেঙ্গে যাবে।   - ইবনে আবেদীনঃ- ১/২৮৪, জাদীদ ফিকহী মাসায়েলঃ- ১/৬২,...

উত্তরঃ-  ফিকহ ও ফাতাওয়ার কিতাব দ্বারা জানা যায় যে, অজু এবং গোসলের অঙ্গগুলো ধৌত করার সময় চামড়া পর্যন্ত পানি পৌঁছানো আবশ্যক। অতএব প্লাস্টিক সার্জারীর কারণে যদি চামড়া পর্যন্ত পানি না পৌঁছে, তাহলে তার উপর অজু করলে অজু হবেনা। তবে যদ...

উত্তরঃ- পাগল, মাতাল, অচেতন, বেহুঁশ হওয়া অজু ভঙ্গ হওয়ার কারণের অন্তর্ভুক্ত। সুতরাং প্রশ্নে বর্ণিত ব্যাক্তির কোমড়ের নেচে অবশ করার ফলে উক্ত অঙ্গ অচেতন হওয়ায় তার অজু ভঙ্গ হওয়া না হওয়া  অস্পষ্ট। তাই ফকিহগন বলেছেন তার অজু ভেঙ্গে যাবে। ...

উত্তরঃ- শরীরের ক্ষতস্থান থেকে রক্ত পুজ পানি বের হলে ওজু ভঙ্গ হয়ে যায়। চক্ষু উঠা যেহেতু ক্ষত তাই প্রশ্নে বর্ণিত ব্যাক্তির চোখ থেকে পানি বের হওয়ার কারণে ওজু ভঙ্গ হয়ে যাবে।   -হিদায়াঃ-১/২২-২৩, হাশিয়াতুত তাহতায়ীঃ-১/৮৮, আপকে মা...

ইসলামে পবিত্রতার গুরুত্ব অনেক। আল্লাহ তাআলা ইরশাদ করেন, والله يح...