Author: Mufti Shamsuddoha

উত্তর: যদি কোনো পিতা তার জীবদ্দশায় ওয়ারিশদের মাঝে হেবা সূত্রে সম্পদ বণ্টন করতে চায় তার জন্য সর্বোত্তম পন্থা হচ্ছে, সমূদয় সম্পদ সকল ওয়ারিশদের মাঝে মীরাছের পদ্ধতিতে বণ্টন করা। তবে শরয়ী কোনো কারণে তাদের মাঝে কম বেশি কর...

উত্তর: শরীয়তের দৃষ্টিতে তালাককে কোনো কিছুর সাথে শর্তযুক্ত করলে যতক্ষণ পর্যন্ত উক্ত শর্ত পাওয়া যায় না ততক্ষণ পর্যন্ত তালাক পতিত হয় না। সুতরাং উল্লিকিত মূলনীতির আলোকে আপনার প্রদত্ত বর্ণনা ও তার উপর আপনার স্ত্রীর সত্যায়...

উত্তর: যাকাতের নেসাবের মালিক না হলে যাকাত গ্রহণ করা যাবে। তবে স্বচ্ছল ব্যক্তিদের যাকাত গ্রহণ না করাই শ্রেয়। স্বচ্ছলদের উচিত অস্বচ্ছল ব্যক্তিদের যাকাত গ্রহণের জন্য সুযোগ করে দেওয়া। হিদায়া- ১/১১০, তাবয়ীনুল হাকায়েক- ...

উত্তর: ব্যবহারের জন্য ক্রয় করার কারণে এই গাড়ির যাকাত দিতে হবে না। বিক্রয় মূল্য হিসেবেও না, ক্রয় মূল্য হিসেবেও না। , ফাতওয়া হিন্দিয়া-১/২৪১, খুলাসাতুল ফাতাওয়া-১/২৪০ফাতাওয়া কাযীখান-১/১২৩)।...

উত্তর: এডভান্সড হিসেবে গৃহীত টাকা অগ্রীম ভাড়া হিসেবে গণ্য হবে। টাকার মালিক আপনি বিবেচিত হবেন। বিধায় আপনাকে সেই দুই লক্ষ টাকার যাকাত দিতে হবে। তবে যদি নিছক সিকিউরিটি হিসেবে টাকা নেওয়া হয় এবং চুক্তি শেষে ফেরত দিতে হয় ত...

উত্তর: আপনার বাসগুলোর মূল্যের যাকাত দিতে হবে না। তবে বাস থেকে যে আয় হবে তা নেসাব পরিমাণ হলে বছরান্তে যাকাত দিতে হবে। হিদায়া-১/৯৬, তাবয়ীনুল হাকায়েক-১/২৫৩, আল ইখতিয়ার-১/১০০)।...

  উত্তর: কারো নিকট সাড়ে বায়ান্ন তোলা রূপা বা তার সমপরিমাণ প্রয়োজন অতিরিক্ত এবং বর্ধনশীল সম্পদ থাকলে বছরান্তে যাকাত ফরয হয়। রূপার দাম হিসেবে বর্তমানে ষাট হাজার টাকায় যাকাত ফরয হয়। সে ব্যক্তি যখন থেকে ষাট হাজার...

জন্য রাখা টাকারও যাকাত দিতে হবে কি না? উত্তর: টাকা পয়সা চাই প্রয়োজনের জন্য রাখা হোক বা প্রয়োজন ছাড়া রাখা হোক, নেসাব পরিমাণ হয়ে বছর পুর্ণ হলে যাকাত দিতে হবে। টাকা পয়সা স্বর্ণ-রূপার হুকুমে। স্বর্ণ-রূপায় যেমন প্রয়োজন...

উত্তর: ছেলের স্ত্রীকে তিন ভরি স্বর্ণ দিয়ে দেয়ার পর ছেলের স্ত্রী তার মালিক হয়ে গেছে। এই স্বর্ণ এখন আর আপনার মালিকানায় নেই। তাই আপনাকে এগুলোর যাকাত দিতে হবে না। তবে ছেলের স্ত্রী যদি এই তিন ভরি স্বর্ণের সাথে আরো কোনো যা...

উত্তর: প্রশ্নোক্ত সূরতে ব্যাংকে জমা রাখা স্বর্ণের উপর যাকাত ফরয হবে। কেননা ব্যাংকে রাখা স্বর্ণের উপর আপনার পরিপূর্ণ মালিকানা রয়েছে। আর সম্পদে পরিপূর্ণ মলিকানা থাকলে বছরান্তে যাকাত ফরয হয়।   সুনানুল কুবরা ব...

উত্তর: স্ত্রী নেসাব পরিমাণ সম্পদের মালিক হলে তার উপর যাকাত ফরয হবে। স্বামী ঋণগ্রস্ত হওয়াতে স্ত্রীর যাকাতের মধ্যে কোনো প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি হবে না। স্ত্রী স্বীয় স্বামীকে যাকাত দিতে পারবেন। বরং ঋণগ্রস্ত স্বামীকে যাকাত দ...

উত্তর: যাকাত আদায়ের ক্ষেত্রে আরবী বছর ধর্তব্য। নেসাব পরিমাণ সম্পদের মালিক হওয়ার পর আরবী তারিখের হিসেবে বছর পুরো হলে যাকাত দিতে হবে। আল-বাহরুর রায়েক- ২/২০৯, আন-নাহরুল ফায়েক- ১/৪১৪, ফাতাওয়া হিন্দিয়া- ১/১৭৫)।...

উত্তর: বছরের শুরুতে নেসাবের মালিক হওয়ার পর বছর শেষ হাওয়ার পূর্বেই যদি টাকা খরচ হয় তাহলে যাকাত ফরয হবে না। কেননা, যাকাত ফরয হওয়ার জন্য শর্ত হলো, নেসাব পরিমাণ সম্পদ বছরের শেষ পর্যন্ত বাকি থাকতে হবে। অবশ্য বছরের মাঝে যদ...

  উত্তর: আপনার গ্রামের বাড়ির যাকাত ফরয নয়। গ্রামের বাড়ি আপনার বাসস্থান বলে বিবেচিত হবে। আর বাসস্থানের উপর যাকাত ফরয হয় না।   বাদায়েউস সানায়ে- ২/১১, আল-বাহরুর রায়েক- ২/২২২, রদ্দুল মুহতার- ২/২৬২)।...

উত্তর: প্রশ্নোক্ত ব্যক্তিটি যাকাতের উপযুক্ত হলে তাকে যাকাতের ঐ টাকা দেওয়া যাবে। এতে আপনার যাকাত আদায় হয়ে যাবে। উল্লেখ্য, যাকাত ফরয হওয়ার সাথে সাথেই আদায় করা কর্তব্য। যাকাতের টাকা জমা রাখা উচিত নয়। হিদায়া- ১/১১০...