রাশিয়ান নারীকে ভারতে গণধর্ষণ

Shortlink:

ভারতের তামিলনাড়ুতে এক রাশিয়ান নারীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে। রাজ্যটির রাজধানী চেন্নাই থেকে প্রায় ১৯০ কিলোমিটার দ‚রে ‘মন্দির শহর’ বলে খ্যাত তিরুবন্যামালাই’র একটি গেষ্টহাউজের মধ্যে ওই বিদেশিনীকে গণধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ।
গত বুধবার ভারতের চেন্নাইয়ের পুলিশ জানিয়েছে, গত সোমবার ২১ বছর বয়সী ওই নারী পর্যটককে গেষ্টহাউজের ভেতরই অচেতন অবস্থায় উদ্ধার করা হয়। এরপর ওইদিন সন্ধ্যায় গেষ্টহাউজের এক কর্মী ওই নারীকে স্থানীয় একটি নার্সিং হোমে নিয়ে যান। এরপর ওই নারীকে পরীক্ষারত চিকিৎসক পুলিশকে খবর দেন। পরে ওই নারীকে তিরুবন্যামালাই গভর্নমেন্ট মেডিকেল কলেজ এন্ড হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে তার স্বাস্থ্য পরীক্ষা করানো হয়। মেডিকেল রিপোর্টেই জানা যায় যে, তার মুখে-হাতে কামড়ের দাগ এবং শরীরে ক্ষত চিহ্ন রয়েছে।
এই ঘটনায় ওই গেষ্টহাউজের মালিক, তার ভাই, একজন সহকারি ও ট্যাক্সি চালক-এই চারজনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু হয়েছে বলে জানা গেছে।
সাব-ইন্সপেক্টর জে. ইলাভরাসি জানান, ‘ইতিমধ্যেই তদন্তও শুরু করেছে তিরুবন্যামালাই শহর পুলিশ। ভারতীয় দন্ডবিধির ৩৭৬ (ধর্ষণ) ও ৫১১ (অপরাধ সংগঠিত করার চেষ্টা) ধারায় অভিযোগও দায়ের করা হয়েছে’।
এদিকে, বুধবার সকালে আদালতের ম্যাজিস্ট্রেটের সামনে ওই নারীর বয়ানও লিপিবদ্ধ করা হয়।
পুলিশের সন্দেহ মাদক সেবনের পরই ওই বিদেশিনী অচেতন হয়ে পড়েন। ভাষা সমস্যার কারণে ইন্টারপ্রেটারের সহায়তায় ওই রাশিয়ান নারীর সাথে কথা বলার চেষ্টা করা হচ্ছে।
জানা গেছে, গত প্রায় এক সপ্তাহ আগে চেন্নাইয়ের ওই গেষ্টহাউজটিতে চেক-ইন করেন ওই রাশিয়ান পর্যটক। একটি ট্যাক্সি ভাড়া করে শহরের একাধিক আশ্রম, মন্দির ভ্রমণ করেন তিনি।
স্থানীয়রা জানিয়েছেন, শেষবার গত শনিবার তাকে ওই হোটেলের বাইরে দেখা গেছে।
সূত্র: টাইমস অব ইন্ডিয়া

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *