ধর্ষণের অভিযোগে চার খৃস্টান পাদ্রী গ্রেফতার

Shortlink:

ভারতের কেরালা রাজ্যে এক নারীকে ধর্ষণের অভিযোগে অভিযুক্ত চারজন খ্রিস্টান পাদ্রির দুজন পুলিশের কাছে আত্মসমর্পণ করেছে। কেরালার উচ্চ আদালত তাদের জামিন নামঞ্জুর করে আটকের নির্দেশ দিয়েছেন। ৩২ বছর বয়সী এক ভারতীয় নারীকে ব্লাকমেইল করে ধর্ষণ করে আসছিলো চার পাদ্রি। অভিযুক্ত তৃতীয় পাদ্রি শিগগির আত্মসমর্পণ করবে বলে জানা গেলেও চতুর্থ পাদ্রির অবস্থান জানে না পুলিশ। গত ফেব্রুয়ারি ধর্ষণের বিষয়টি সামনে আসে, যখন ওই নারীর স্বামী ব্লাকমেইলের বিষয়টি ধরতে পারেন। চার্চ কর্তৃপক্ষের সঙ্গে ধর্ষিতার স্বামীর ফোনালাপ ভাইরাল হয়ে যাওয়ার পরিপ্রেক্ষিতে গত ২ জুন পুলিশি অভিযোগ দায়ের করা হয়। পুলিশের দায়ের করা অভিযোগপত্র অনুসারে জানা গেছে, অভিযুক্ত পাদ্রিদের একজন ওই নারীকে ১৬ বছর বয়স থেকে যৌন হয়রানি শুরু করে। কনফেশনের সময় বিষয়টি অন্য পাদ্রিকে জানালে ওই পাদ্রিও তার সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক স্থাপন শুরু করে। কাউকে বিষয়টি না জানানোর কথা বলে ওই মেয়ের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক বজায় রাখে অভিযুক্ত দুই পাদ্রি। সাহায্যের জন্য আরো দুই পাদ্রির কাছে গেলে তারাও তাকে ধর্ষণ করে বলে অভিযোগ করেন কেরালার ওই নারী। তাদের সঙ্গে যৌন সম্পর্ক না করলে জনসমক্ষে তাকে হেয় করা হবে বলে হুমকি দিত পাদ্রিরা। কেরালার প্রভাবশালী সিরিয়ান ক্রিশ্চিয়ান সম্প্রদায় চার পাদ্রির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগটি উত্থাপিত হয়েছে। কেরালার মোট জনসংখ্যার এক-পঞ্চমাংশই হচ্ছে এ সম্প্রদায়ের।
বিবিসি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *